প্রেস বিবৃতি :: ২৫ আক্টোবর ২০১৭

আজ ভোররাতে কলকাতার এসএসকেএম হাসপাতালে কালিম্পং পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলার বরুণ ভুজেলের মৃত্য হয়েছে। এই মৃত্যু কোনও স্বাভাবিক মৃত্যু নয়, দার্জিলিঙে রাজ্য সরকারের লাগাতার দমননীতির আর একটি মর্মান্তিক পরিণতি। এটি পুলিশী নির্যাতনের ফলে হেফাজতে বন্দিমৃত্যু এবং এর দায় সরকারকেই নিতে হবে।

৪২ বছরের বরুণ ভুজেল ১৫ জুন গোর্খাল্যান্ড আন্দোলনে অংশগ্রহণ করার জন্য গ্রেপ্তার হন। তাঁর পরিবারের অভিযোগ, গ্রেপ্তারের সময় ও তারপর তাঁকে এসপি সহ পুলিশ কর্মিরা প্রচণ্ড মারধর করে এবং তাঁর মাথায় মারাত্মক আঘাত লাগে। জলপাইগুড়ি জেলে থাকায় সময় তাঁর অবস্থার অবনতি ঘটতে থাকে। ২৫ সেপ্টেম্বর তাঁকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয় ও ২২ অক্টোবর এসএসকেএম-এ নিয়ে আসা হয়। বাড়ির লোকেরা খবর পেয়ে সেখানে গেলে তাঁদের সঙ্গে অত্যন্ত অমানবিক আচরণ করা হয়েছে এবং বরুণকে দেখতেও দেওয়া হয়নি।

এপিডিআর এই ঘটনার বিচারবিভাগীয় তদন্ত, দোষী পুলিশদের শাস্তি এবং নিহত বন্দির পরিবারকে আইনানুগ ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবি করছে।

ধীরাজ সেনগুপ্ত
সাধারণ সম্পাদক